,



কাশিমপুর কারাগারে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ আলোচিত ‘শিশু বক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানীকে গাজীপুর জেলা কারাগার থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ পাঠানো হয়েছে। শনিবার (১০ এপ্রিল) সকালে দিকে র‌্যাব-পুলিশের কড়া প্রহরায় তাকে ওই কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। এ সময় বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার নজরদারি ছিল। গাজীপুর জেলা কারাগারের সুপার বজলুর রশিদ আখন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কারা সূত্র জানায়, শনিবার সকাল সোয়া নয়টার দিকে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে জেলা কারাগার থেকে কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়। বেলা ১০টার দিকে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ পৌঁছায় বলে কারা সূত্রে জানা গেছে।

রাষ্ট্রবিরোধী, উস্কানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে বিতর্কিত ‘শিশু’ বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার র‌্যাব বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গাজীপুরের গাছা থানায় পরে ঢাকায় অপর একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর আগের দিন বুধবার ভোরে রফিকুল ইসলামের গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার লেটিরকান্দা থেকে তাকে আটক করে র‌্যাব।

 

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ জানান, বৃহস্পতিবার সকালে র‌্যাব-১ ডিএডি মোহাম্মদ খালেক বাদী হয়ে গাছা থানায় বিতর্কিত বক্তা রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছেন। পরে এই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

 বৃহস্পতিবার সকালে তাকে গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শরিফুল ইসলাম এর আদালতে হাজির করা হলে আদালত শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ প্রদান করেন। দুই দিন জেলা কারাগারে থাকার পর শনিবার তাকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ পাঠানো হয়।
Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর