,



মহাসড়কে সাধারণ মানুষের চাপ, মানছে না স্বাস্থ্যবিধি

বাঙ্গালী কণ্ঠ ডেস্কঃ দেশব্যাপী বুধবার থেকে কঠোর লকডাউনের খবরে বাড়িফেরা মানুষের চাপে মঙ্গলবার সকাল থেকেই সড়ক ও মহাসড়কে ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

 রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক ছাড়াও ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে তীব্র যানজট দেখা গেছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই শনিরআখড়া থেকে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল পর্যন্ত ভয়াবহ যানজট শুরু হয়।

এ সময় অনেক যাত্রীকে পায়ে হেঁটে বাস টার্মিনালের দিকে আসতে দেখা যায়। দূরপাল্লার বাস চলাচল না করলেও অনেকে পরিবার নিয়ে প্রাইভেটকার ভাড়া করে গ্রামের বাড়ি যাচ্ছেন। আর এ সুযোগে ৩-৪ গুণ বেশি ভাড়া আদায় করছেন গাড়িচালকরা।

সোমবার সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে সোনারগাঁওয়ের মেঘনা টোল প্লাজা পর্যন্ত মহাসড়কের উভয় পাশে ২০ কিলোমিটারেরও বেশি দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

প্রচণ্ড গরমে যানজটে আটকেপড়া মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েন। এ সময় অনেককে প্রচণ্ড রোদের মধ্যে পায়ে হেঁটে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে যাত্রা করতে দেখা গেছে।

 কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান যুগান্তরকে জানান, সোমবার সকাল থেকেই হাইওয়ে থানা পুলিশ মহাসড়কে যানজট নিরসনে কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু অতিরিক্ত গাড়ির চাপে একটু পরই আবার ভয়াবহ যানজট শুরু হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, কঠোর লকডাউনের খবরে অনেকেই রাজধানী ছেড়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন। এতে করে সোমবার সকাল থেকে ঢাকা-সিলেট এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে প্রচণ্ড গাড়ির চাপ রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর