,



বন্যা দুর্গতদের পাশে কেউ নেই, সবাই ব্যস্ত নির্বাচনের জয় নিয়ে -এরশাদ

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ  জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বন্যা দুর্গতদের পাশে কেউ নেই। সবাই ব্যস্ত আগামী নির্বাচন নিয়ে। ঢাকায় বসে দেখি সবাই নিজেদের স্বার্থ নিয়ে ব্যস্ত। প্রতিদিন মৃত্যুর খবর ছাড়া খবর নাই। প্রতিদিন হত্যা হচ্ছে। গুম-খুনের খবর ছাড়া কোন ভালো খবর নাই। বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে এবার আউশ ধানও নষ্ট হয়ে গেছে। জানলাম ২৮৪জন মানুষ নিখোঁজ রয়েছে। তার মধ্যে ৭জনের লাশ পাওয়া গেছে। বাকিদের লাশ পাওয়া যায়নি। মানুষ হত্যা করে আমরা রাজনীতি করি না। আমরা মানুষকে সুখের খবর দিতে চাই, শান্তির খবর দিতে চাই। গতকাল শুক্রবার দুপুরে সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর টোল প্লাজা এলাকায় বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। সিলেটের শেরপুর ব্রিজ, বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনসহ নিজেদের সময়কার বিভিন্ন উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এসব উন্নয়ন সিলেটের মানুষের প্রতি আমাদের ভালবাসার প্রমাণ। নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধ করতে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় পাঠানোর আহবান জানান তিনি। ওসমানীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সুফি মাহমুদের সভাপতিত্বে এবং যুব সংহতি নেতা ও সিলেট জেলা পরিষদ সদস্য আশিক মিয়ার পরিচালনায় ত্রাণ বিতরণ ও পথসভা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য শুনিল শুভরায়, সাংগঠনিক সম্পাদক মুনিম চৌধুরী বাবু এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দিন আহমদ বাবলু এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, কেন্দ্রীয় সদস্য পীর ফজলুর রহমান এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, দলের যুগ্ম মহাসচিব স্থানীয় সাংসদ ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী প্রমুখ। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রী মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি বলেন, এরকম একটি বিপর্যয়ে হাসিনা-খালেদা কেউ দেখতে আসেনি। আপনাদের ভালবেসে এরশাদ সাহেব ছুটে এসেছেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ওসমানীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ময়নুল হক চৌধুরী, জাপার কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লা সিদ্দিকী, জাপা নেতা, শংকর পাল, এডভোকেট আবদুল হাই কাইয়ুম, সিতাব আলী, আবুল খায়ের আখতার হোসেন মনির, মকবুল হোসেন প্রমুখ শুরুতে কুরআন তিলাওয়াত করেন মাওলানা শামসুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ওসমানীনগরের বন্যা কবলিত প্রায় সাড়ে ৪ হাজার পরিবারের সদস্যদের মধ্যে স্থানীয় সাংসদ সদস্য ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে চাল, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়। তবে গতকাল একসাথে সকলকে তা বিতরণ করা সম্ভব হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর