,



২৪ ঘণ্টায় আরো ৬১ জনের মৃত্যু

মহামারি করোনাভাইরাসে দেশে একদিনে আরো ৬১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ১১ হাজার ৭০৫ জনে। একইসময়ে নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১৯১৪ জন। এতে মোট শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৫৯৬ জন।

মঙ্গলবার (৪ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, সরকারি হিসাবে আক্রান্তদের মধ্যে একদিনে আরো ৩ হাজার ৮৭০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন; এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট ৬ লাখ ৯৫ হাজার ৩২ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ৪২০টি ল্যাবে ২১ হাজার ৯১৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ৫৫ লাখ ৪০ হাজার ৩৯৪টি নমুনা।

২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৮ দশমিক ৭১ শতাংশ, এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮২ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৭৮ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৩ শতাংশ।

সরকারি ব্যবস্থাপনায় এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪০ লাখ ৮২ হাজার ২০১টি; বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৪ লাখ ৫৮ হাজার ১৯৩টি।

গত একদিনে যারা মারা গেছেন, তাদের ৩৬ জন পুরুষ আর নারী ২৫ জন। তাদের ৪৩ জন সরকারি হাসপাতালে, ১৬ জন বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান। বাসায় মারা গেছেন দুই জন।

তাদের মধ্যে ৪৪ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, ১১ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ২ জনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, ৩ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে এবং ১ জনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিল।

মৃতদের মধ্যে ২৮ জন ঢাকা বিভাগের, ১৮ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৭ জন রাজশাহী বিভাগের, ১ জন করে খুলনা ও ময়মনসিংহ বিভাগের এবং ২ জন করে সিলেট, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

এ পর্যন্ত মৃত ১১ হাজার ৭০৫ জনের মধ্যে ৮ হাজার ৫১২ জন পুরুষ এবং ৩ হাজার ১৯৩ জন নারী।

গত ২৪ ঘণ্টায় আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০৯ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ হয়েছেন ১২ জন। এছাড়াও হাসপাতালটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। গত একদিনে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮ জন।

প্রসঙ্গত, কোভিড ও নন কোভিড রোগীদের সম্পূর্ণ পৃথক চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এমনকি দুটি বিভাগের চিকিৎসক, নার্সসহ কর্মরত প্রত্যেকের আলাদা থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনা চিকিৎসা ছাড়া অন্য সকল চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম আগের মতই চলমান রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর