,



রিমান্ডে ধর্ষণের কথা স্বীকার করলো ইভান, আত্মগোপন করেছিল ছাদে

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ  রাজধানীর বনানীতে জন্মদিনের পার্টিতে দাওয়াত দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের মামলার আসামী বাহাউদ্দিন ইভানকে (২৮) চারদিনের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে ইভান, জানিয়েছে গ্রেপ্তার এড়াতে বাসার ছাদে আত্মগোপন করছিল।

বনানী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আকবর আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুলতানা আক্তার তার সাতদিনের রিমান্ড চায়। মুখ্য মহানগর হাকিম মোঃ মাজহারুল ইসলামের আদালত শুনানি শেষে তার চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। জিজ্ঞাসাবাদের প্রথমদিনেই ইভান ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।

জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, ধর্ষণের অভিযোগ মামলা দায়েরের খবর জানার পর পরই গ্রেপ্তার এড়াতে বাড়ির ছাদে আত্মগোপন করেছিলেন। যার কারণে গত ৫ জুলাইবনানীর ন্যাম ভিলেজে তার বাড়িতে অভিযানে গিয়েছিল পুলিশ। এ সময়  তিনি। পুলিশ চলে যাওয়ার পর বাহাউদ্দিন ইভান সাধারণ পোশাকে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান।

পলাতক এই ধর্ষককে বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিম দেওভোগ এলাকায় খালার বাড়ি থেকে  গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।শুক্রবার বিকেল ৩টায় তাকে আদালতে হাজির করে বনানী থানা পুলিশ। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুলতানা আক্তার তার সাতদিনের রিমান্ড চায়। মুখ্য মহানগর হাকিম মোঃ মাজহারুল ইসলামের আদালত শুনানি শেষে তার চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

বাহাউদ্দিন ইভান সম্পর্কে র‍্যাবের ব্রিফিংয়ে বলা হয়, ব্যবসায়ী বোরহান উদ্দিনের ছেলে বাহাউদ্দিন ঢাকার ক্যামব্রিয়ান স্কুল অ্যান্ড কলেজে নবম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করেছেন। পরে তিনি তাঁর বাবার ব্যবসা দেখাশোনা করতেন। তাঁর স্ত্রী-সন্তান আছে। ২০০৫ সাল থেকে তিনি মাদক সেবন শুরু করেন। নানা অপকর্মে তাঁর জড়িয়ে পড়ার তথ্য মিলেছে।

জন্মদিনের দাওয়াতের কথা বলে গত মঙ্গলবার রাতে বনানীর ন্যাম ভিলেজের বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে বাহাউদ্দিনের বিরুদ্ধে বুধবার বনানী থানায় মামলা করেন এক তরুণী অভিনেত্রী। ওই তরুণীর শারীরিক পরীক্ষা  ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে।

মামলার এজাহারে ওই তরুণী অভিযোগ করেন, ১১ মাস আগে ফেসবুকে বাহাউদ্দিনের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব হয়। মঙ্গলবার রাতে তাঁকে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের কথা বলে বাড়িতে আমন্ত্রণ জানান। তিনি বাড়িতে গেলে নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে ধর্ষণ করেন। এরপর রাত সাড়ে তিনটার দিকে বাহাউদ্দিন তাঁকে বাড়ি থেকে বের করে দেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর