,



প্রত্যন্ত হাওরে প্রসূতি সেবায় অবদান রাখছে পপি

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জের নিকলীর প্রত্যন্ত দুই ইউনিয়ন ছাতিরচর ও সিংপুর। দুর্গম হাওরের এই দুই ইউনিয়নে গর্ভবতী মা ও প্রসূতি সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে পপি ভাসমান বিদ্যালয় ও প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র প্রকল্প।

প্রকল্পের আওতায় দুটি ইউনিয়নে মোট চারজন ট্রেডিশনাল বার্থ এটেনডেন্ট নিরাপদ প্রসব ও গর্ভকালীন পরিচর্যা বিষয়ে সার্বক্ষণিক সেবা দিচ্ছেন।

তাদেরকে আরো দক্ষ ও প্রশিক্ষিত করে তুলতে ৬ দিনব্যাপী মৌলিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

নিকলী উপজেলা রিসোর্স সেন্টারে গত ১৯ জুন থেকে এই প্রশিক্ষণ শুরু হয়ে চলে বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) পর্যন্ত।

প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার হুমাইরা আক্তার। প্রশিক্ষণে সহায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন প্রকল্পের হেলথ কেয়ার প্রফেশনাল ফুলমালা আক্তার।

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বিকালে প্রশিক্ষণের সমাপনী ঘোষণা করেন পপি ভাসমান বিদ্যালয় ও প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. জহিরুল ইসলাম।

প্রশিক্ষণ শেষে প্রশিক্ষণার্থী চারজন ট্রেডিশনাল বার্থ এটেনডেন্ট এর মাঝে পিপিই, ইউনিফর্ম, ছাতা, যাবতীয় উপকরণসহ  ফার্স্ট এইড বক্স, কেএন৯৫ মাস্ক ও অন্যান্য উপকরণ বিতরণ করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর