,



বন্যার পানি কমতে শুরু করেছে, দেখা দিয়েছে পানিবাহিত রোগ

বাঙালী কণ্ঠ নিউজঃ  মৌলভীবাজারের পাঁচটি উপজেলায় বন্যার পানি কমছে শুরু করেছে। তবে এখনো তিন লাখ মানুষ পানিবন্দী রয়েছেন। শেরপুরে কুশিয়ারা নদীর পানি চার সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জনিয়েছেন মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী ইন্দ্র বিজয় শংকর চক্রবর্তী।

রবিবার বিকেলে তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কুশিয়ারা নদীর পানি কমায় হাকালুকি হাওরসহ সব হাওরের পানি কমেছে। এ কারণে বন্যায় ডুবে যাওয়া রাস্তাঘাট ভেসে উঠেছ।’

পানি কমলেও বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের মধ্যে জ্বরসহ বিভিন্ন পানিবাহিত রোগ দেখা দিয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে বড়লেখা উপজেলার সুজানগর ইউপির চেয়ারম্যান নছিব আলী বলেন, ‘পানি কিছুটা কমেছে। তবে আমার ওয়ার্ডে অর্ধ শতাধিক লোক জ্বরে ভুগছেন। ৩০/৪০ জন নারী-পুরুষ চর্মরোগ ও পেটের পীড়ায় ভুগছে।  জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, জেলার ৩৫টি ইউনিয়নের ৩৫০টি গ্রাম বন্যা কবলিত হয়েছে। এতে ৩ লাখ ১০ হাজার ৮০ জন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যার কারণে ২৫০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। বন্যায় আউশ ও রোপা আমনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।  বড়লেখা উপজেলার সুজানগর ইউপি চেয়ারম্যান নছিব আলী আরও বলেন, আমার ইউনিয়নে ৫০০ ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যায় ঘরের বেড়া ভেঙে গেছে। এখন জরুরি ভিত্তিতে মাটি ও ঢেউটিন দরকার।

বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আহম্মদ হোসেন বলেন, ‘এ পর্যন্ত পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত ৩০/৪০ জন নারী-পুরুষ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে। উপজেলার ৯টি ওয়ার্ডে ১০টি মেডিক্যাল টিম কাজ করছে।পর্যাপ্ত মেডিসিন মজুত রয়েছে।  বড়লেখা উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, সরকার থেকে ১৮৫০ জন ক্ষতিগ্রস্তকে ভিজিএফের ২৫২.৫৮ মেট্রিক টন চাল, ২৭ লাখ ৭৫ হাজার টাকা এবং জিআর কর্মসূচির আওতায় দুর্গতের মধ্যে ১৫০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ৬ লাখ ৯৩ হাজার টাকা ও টেউটিন বিতরণ করা হবে। মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মো.তোফায়েল ইসলাম বাঙালী কণ্ঠকে বলেন, ‘কুশিয়ারার পানি কমায় কাউয়াদীঘি হাওর, হাকালুকি হাওরের পানি অনেকটাই কমেছে। আগে যে রাস্তাগুলো পানির নিচে ছিল, সেগুলো উঠেছে। আশা করছি কয়েক দিনে মধ্যে হাওরের পানি কমে যাবে।’

কুশিয়ারা নদী, হাকালুকি, কাউয়াদীঘি ও হাইল হাওরে পানি বৃদ্ধির কারণে মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা, জুড়ী, কুলাউড়া, রাজনগর ও সদর উপজেলার ৩৫টি ইউনিয়নে বন্যার হয়েছে। এরমধ্যে ৪০ হাজার হেক্টর আয়তনের হাকালুকি হাওরকে ঘিরে আছে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, জুড়ী  বড়লেখা এবং সিলেটের গোলাপগঞ্জ ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর