,



৫ আইনজীবীর ক্ষমা প্রার্থনা, আদেশ ২০ জুলাই

বাঙালী কণ্ঠ নিউজঃ হাইকোর্টের এজলাস কক্ষে ভাঙচুর, বেঞ্চ কর্মকর্তাকে মারধর ও আদালতের কার্যক্রমে ব্যাঘাত সৃষ্টির অভিযোগে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ আইনজীবী।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর বেঞ্চে সোমবার তারা ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পরে এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামী ২০ জুলাই দিন ধার্য করেন আদালত।

ওই পাঁচ আইনজীবীরা হলেন—নূরে-ই-আলম উজ্জ্বল, লিজেন পাটোয়ারী, সুলতান মাহমুদ, মতিলাল বেপারি ও মোহাম্মদ আলী।

আদালতে আইনজীবীদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল ও মাহবুব উদ্দিন খোকন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন, সাবেক সভাপতি ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ও আবদুল বাসেত মজুমদার।

এর আগে ১৯ জুন আদালতের এক আদেশে বলা হয়, ২৪ নম্বর কক্ষে (এনেক্স) কিছু সংখ্যক আইনজীবী চিৎকার হট্টগোল শুরু করেন, যা এ আদালতের কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করে। এরপর চার আইনজীবী এজলাসে এসে রফিকুল ইসলাম নামের বেঞ্চ কর্মকর্তার ওপর চড়াও হন, তার মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করেন এবং আদালতের মামলার নথিপত্র তছনছ করেন। তাদের অভিযোগ, তালিকাভুক্ত আবেদনের শুনানি হয়নি। কিছু আইনজীবী এজলাসের পাশে দাঁড়িয়ে এসব কর্মকাণ্ডে উৎসাহ দেন।

এসব অভিযোগে পাঁচ আইনজীবীর বিরুদ্ধে রুল জারি করে ২ জুলাই হাজিরের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। ওইদিন তারা হাজিরের পর আদালত শুনানির জন্য ১০ জুলাই দিন নির্ধারণ করেছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর