লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আমন চাষীদের

বাঙালী কন্ঠ নিউজঃ  বিভিন্ন হাটে রোপা আমনের চারা সংগ্রহ করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষীরা। গেল মৌসুমের চেয়ে এবারে আমন মৌসুমে তারা লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন।

জেলার মধুখালীতে উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় গেল মৌসুমের চেয়ে চলতি বছর আমন রোপনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভবনা করছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

উপজেলার সবচেয়ে বড় দু’টি হাট মধুখালী সদর ও কামারখালীর প্রতি হাটবারে আমন রোপার চারা সংগ্রহ করতে ভিড় লেগে আছে কৃষকদের। প্রতি শত এক বোঝার চারা ক্রয় করছেন কৃষকরা ৫ শত টাকা থেকে ৬’শত টাকায়। দু’টি হাটে চারার আমদানীও বেড়েছে ব্যাপকহারে।

চারার দাম একটু বেশী হলেও চারা রোপন করতে কৃষকরা এখন পার করছেন ব্যস্ত সময়।

সম্প্রতি টানা বৃষ্টিতে চাষীদের মরিচসহ অন্যান্য ফসলের ক্ষতি হওয়ায় তারা মরিচ এবং পাট কেটে দ্রুত রোপা আমন রোপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

মধুখালী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা খালেদা পারভীন জানান, রোপা আমন সাধারণত জুলাই থেকে আগস্টের শেষ পর্যন্ত আবাদ করা হয়ে থাকে। কিন্ত এবার চাষীরা আগাম ভাসমানচারাসহ বিভিন্ন উপায়ে তিন হাজার ৭’শ হেক্টর জমিতে ইতোমধ্যে রোপা আমনের চারা রোপন করেছে কৃষকরা। যা চলবে আগস্ট মাসের শেষ পর্যন্ত।

চলতি বছর উপজেলায় ব্যাপক ফসলহানী হওয়ায় তারা আগাম রোপা আমন চাষ করছেন। ফলে এবছর রোপা আমনে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর