,



ক্ষমতাসীনদের অনিচ্ছায় ডাকসু নির্বাচন হচ্ছে না

ক্ষমতাসীনদের অনিচ্ছার কারণেই ডাকসুর নির্বাচন হচ্ছে না মন্তব্য করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘অনেক দিন থেকে ডাকসুর নির্বাচন হয় না। এর কারণ ক্ষমতাসীনরা বিশ্ববিদ্যালয়ে অরাজক পরিবেশ সৃষ্টি করেছে যাতে ডাকসুর নির্বাচন করা সম্ভব না হয়।’

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. মনিরুজ্জামান মিয়ার মৃত্যুতে আয়োজিত শোকসভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ‘জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন’ নামের একটি সংগঠন।

অধ্যাপক এমাজউদ্দিন বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যদি অসুস্থ হয়, তবে গোটা সমাজটাই অসুস্থ হয়ে যাবে। যে সেক্টরে যাবেন অধিকাংশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে বের হয়েছে। বাংলাদেশের এমন কোনো অর্জন নেই, যে অর্জনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণ নেই।’

তিনি বলেন, ‘আলোকিত দেশ গড়তে আলোকিত সমাজ তৈরি করা দরকার। আর আলোকিত সমাজ তৈরি করতে এই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরই প্রয়োজন। গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার মূল মন্ত্রটাই শিখতে হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। এমন বিশ্ববিদ্যালয়ে যেন কোনো অযোগ্য ভিসি বসানো না হয়। তাহলে সমাজ অন্ধকারে ঢেকে যাবে।’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কিছু যোগ্য ব্যক্তির পরিবর্তে অযোগ্য শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হচ্ছে বলেও এসময় তিনি অভিযোগ করেন।

‘জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও’ আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শাহ মোহাম্মাদ আবু জাফর, সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, জাতীয় মানবাধিকার সংস্থার সভাপতি মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর