,



ভায়াগ্রার মতোই শক্তিশালী এই ফল

বাঙালী কণ্ঠ নিউজঃ যৌন সমস্যা নিয়ে দুশ্চিন্তা! গবেষকরা বলছেন, এই সমস্যা এখন অনেকটাই কমিয়ে ফেলা সম্ভব, সেটাও খুব সহজে। এমন উপাদান আছে প্রকৃতিতেই, যা কিনা আসলে ভায়াগ্রার মতোই শক্তিশালী। টেক্সাস এ অ্যান্ড এম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় উঠে এসেছে এমনই তথ্য। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্রুট অ্যান্ড ভেজিটেবল ইমপ্রুভমেন্ট সেন্টারের ডিরেক্টর গবেষক ভিনু পটেলের নেতৃত্বে এই গবেষণা চালান একদল বিশেষজ্ঞ।

তাদের দাবি, যৌন অক্ষমতা দূর করতে তরমুজের ক্ষমতাও ভায়াগ্রার সমান!

যৌন ক্ষমতায় যারা দুর্বল বা অক্ষম—তাদের জন্য তরমুজই সেরা ‘প্রাকৃতিক ঔষধ’। তরমুজে থাকা সিট্রোলিন নামের অ্যামাইনো অ্যাসিড-ই এই ক্ষমতার জন্য দায়ী।

এর উপস্থিতি যে তরমুজে এত বেশি পরিমাণে রয়েছে, এর আগে বিশেষজ্ঞরা তা বুঝে উঠতে পারেননি। শুধু সিট্রোলিনই নয়, তরমুজে থাকা আরজিনিনকেও এই গুণের অন্যতম কারণ। ভায়াগ্রার মতোই রক্তনালিকার কাজ স্বাভাবিক ও সহজ রেখে যৌন ক্ষমতাকে কিছুটা বাড়িয়ে দেয় এই আরজিনিন।

গবেষকদের দাবি, নিয়মিত খাদ্যতালিকায় তরমুজ রাখলে যৌনক্ষমতা তো বাড়েই, তাছাড়া তরমুজের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট মানসিক চাপ কমায়।

গবেষকদের মতে, শারীরিক সম্পর্কের অন্তরায় এই মানসিক চাপও। এমনকি, প্রস্টেট ক্যান্সার, ফুসফুসের ক্যান্সার এ সব রুখে দিতেও ওস্তাদ তরমুজ।

এছাড়া তরমুজে আছে লিকোপেন। লিকোপেন হাড়ের স্বাস্থ্যকে রক্ষা করে।

যৌন ক্ষমতা বাড়ানো ছাড়াও তরমুজের ক্যারোটিনয়েডে চোখের নানা সমস্যা দূর হয়। তরমুজে প্রচুর পানি থাকে বলে তা সহজেই পেট ভরায় কিন্তু শরীরে ক্যালোরি ঢোকে না একটুও। ফলে ওবেসিটি কমাতেও এই ফল বিশেষ কার্যকর।

আর ওবেসিটিজনিত অসুবিধাও যৌন সম্পর্কে নানা বাধার সৃষ্টি করে। তাই নানা দিক থেকে তরমুজেই যৌন সমস্যার সমাধান দেখতে পাচ্ছেন গবেষকরা।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর