,



চোখ কেড়ে নিল একটি শিশু

রাস্তার একপাশে বাংলা একাডেমি, অন্যপাশে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। বইমেলায় যাওয়ার পথে চোখ কেড়ে নিল একটি শিশু। পাশেই রাস্তায় দাঁড়িয়ে ফুলের মালা বিক্রি করছিল ওর মা। হাতে রঙতুলি নেই তো কী? মাটির খাতায় আপনমনে ছবি আঁকছিল শিশুটি। আমার উপস্থিতি টের পেয়ে দ্রুত মুছে ফেলল ধুলোয় আঁকা ছবি। কী


অন্যায়ই না করেছি আমি! অনিচ্ছাকৃত এ অন্যায়ের জন্য এখন আমার খারাপ লাগছে। আগামীকাল মুখ্যত ওর জন্যই বইমেলায় যাব। ছবি তুলে একজন সৎ শিল্পীর মনোযোগে বিঘ্ন ঘটানোর জন্য ক্ষমা চেয়ে নেব করজোড়ে। করোন্মোচন করে শিশুপোযোগী কিছু একটা উপহারও দেব। ওকে না পেলে ওর বয়সী কোনও সুবিধাবঞ্চিত শিশুর হাতে দিয়ে আসব সে-উপহার। ধনী-গরিব সব শিশুই সমান সুন্দর। রাষ্ট্র যত্নবান হলে সমান সম্ভাবনাময়।

বইমেলায় অনেক বই। আমার নিজেরও আছে কয়েকটা। কোনোটিই আজ এই শিশুটির মতো কাছে টানেনি। এখনও চোখে লেগে আছে ওর মায়াভরা মুখটি।
বি:দ্র: লেখাটি কবি আবু হাসান শাহরিয়ারের ফেসবুক থেকে নেয়া।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর