,



১৫ বছর পর মর্যাদা পেলো মৎস‌্যজীবী লীগ

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ প্রতিষ্ঠার পনেরো বছর পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের মর্যাদা পেলো মৎস‌্যজীবী লীগ। এর মাধ্যমে নতুনভাবে সংগঠনটির যাত্রা শুরু হলো।

শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে মৎস‌্যজীবী লীগকে সহযোগী সংগঠনের মর্যাদা দেন দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা।

এদিকে সহযোগী সংগঠনের মর্যাদা পাওয়ার ঘোষণার পর থেকে মৎস‌্যজীবী লীগের নেতাকর্মীরা আনন্দে ভাসছেন। তারা বিভিন্ন মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন।

প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে মৎস‌্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক লায়ন শেখ আজগর নস্কর রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘মৎস‌্যজীবী লীগ নেত্রীর এই ভালোবাসা ও আস্থার প্রতিদান দেবে। তিনি যেভাবে চাইবেন, সেভাবেই সংগঠনকে পরিচালিত করতে যে কোনো ধরনের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত আছি। সহযোগী সংগঠনের মর্যাদা দেয়ায় জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন।’

সংগঠনের সহ সভাপতি মুহাম্মদ আলম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘নেত্রীর ওপর আমাদের শতভাগ আস্থা ছিল যে তিনি আমাদের দাবি অবশ্যই মূল্যায়ন করবেন। মৎস‌্যজীবী লীগের পক্ষ থেকে নেত্রীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। মৎস‌্যজীবী লীগ আওয়ামী লীগের অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের মতোই শক্তিশালী সংগঠন হবে। নেত্রীর নির্দেশ মতো মৎস‌্যজীবী লীগ পরিচালিত হবে।’

একই সঙ্গে ‘আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের’ নাম পরিবর্তন করে ‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ’ করা হয়েছে। গঠনতন্ত্রে এ সংক্রান্ত ২৫ নম্বর ধারায় পরিবর্তনের সংশোধনী প্রস্তাব পাস হয়েছে।

এছাড়া কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ সম্পাদকের পদ বিলুপ্ত করে কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য করা হয়েছে। প্রত্যেক উপকমিটিতে পাঁচ জন সদস্য থাকার কথা বলা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২১ তম জাতীয় সম্মেলন উদ্বোধন করেন দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা। সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে রেকর্ড নবম বারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হক শেখ হাসিনা। আর দ্বিতীয় বারের মতো সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান ওবায়দুল কাদের।

২০০৪ সালের ২২ মে আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়। আওয়ামী লীগের অনেক সমমনা সংগঠনের মতোই এটা পরিচালিত হলেও মূল দলের সঙ্গে কোনো প্রত্যক্ষ সংশ্লিষ্টতা ছিল না। যে কারণে চারটি সম্মেলন হলেও তা বলতে গেলে আলোচনাতে ছিল না। এবারই বড় আকারে সম্মেলন করেছে সংগঠনটি।

মৎস্য পেশার সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে বিপুল জনগোষ্ঠী সম্পৃক্ত। প্রচুর পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রাও আসে এই খাত থেকে। বিপুল সংখ্যক মৎস‌্যজীবী থাকায় এবারই প্রথম এই সংগঠনটির গুরুত্ব দিলো আওয়ামী লীগ। গত ২৯ ডিসেম্বর সমেস্মলনে মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি হিসেবে মো. সাইফুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে লায়ণ শেখ আজগর নস্কর নির্বাচিত হন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর