ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৭৫-এর পর এবারের নির্বাচন সবচেয়ে নিরপেক্ষ হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে ১৯৭৫ সালের পর থেকে যতগুলি নির্বাচন হয়েছে; এবারের নির্বাচন সব থেকে অবাধ, নিরপেক্ষ, সুষ্ঠ হয়েছে।

গুগল নিউজে ফলো করুন আরটিভি অনলাইন
বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সরকারি বাসভবন গণভবনে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, এবারের নির্বাচনে জনগণ তাদের ভোটের অধিকার যথাযথভাবে প্রয়োগ করতে পেরেছে। বিএনপি নানা অপকর্ম করে নির্বাচন ঠেকাতে চেয়েছিল। কিন্তু জনগণ তা করতে দেয়নি। তবে সরকারের নতুন যাত্রাপথ সহজ হবে না। নানা বাধা-বিপত্তি আসবে। সেসব বাধা-বিপত্তি মোকাবিলা করেই এগিয়ে যেতে হবে।

গোপালগঞ্জ জেলার আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা বলেন, আজ রাজনৈতিক কোনো কারণে ডাকিনি। ভোট দিয়ে কোথায় পাঠালেন সেটা দেখার জন্য দাওয়াত দিয়েছি। কোটালিপাড়া, টুঙ্গিপাড়ার মানুষ এসেছে গণভবন ধন্য হয়েছে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, টুঙ্গিপাড়ার মানুষ ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করায় প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশসেবা করার সুযোগ পাচ্ছি। গত নির্বাচন নিয়ে নানা রকম ষড়যন্ত্র ও বাধা-বিপত্তি ছিল। বিরোধিতা সত্ত্বেও ৭৫ পরবর্তীকালে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সবচেয়ে অবাধ ও নিরপেক্ষ হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আজ বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করা এটাই আমার সৌভাগ্য। ওইটুকু সুযোগ পেয়েছি। অন্তত যখন এই দেশের মানুষের কল্যাণ করতে পারি মানুষের মুখে যখন হাসি ফোটে শুধু আমার এটাই মনে হয়, আমার বাবাও হয়ত তিনি বেহেশত থেকে দেখছেন। অন্তত তিনি জানবেন তার মানুষগুলি আর কষ্টে নেই।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে দেশের অর্থনৈতিক নানা সংকট তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে মানুষের মধ্যে অসন্তোষ রয়েছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকার কাজ করছে। কিন্তু সবাই যদি অনাবাদি জমি চাষ করি তবে খাদ্যের অভাব থাকবে না। বরং উদ্বৃত্ত মানুষকে দিতেও পারব।

 

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

Bangal Kantha

৭৫-এর পর এবারের নির্বাচন সবচেয়ে নিরপেক্ষ হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

আপডেট টাইম : ১২:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে ১৯৭৫ সালের পর থেকে যতগুলি নির্বাচন হয়েছে; এবারের নির্বাচন সব থেকে অবাধ, নিরপেক্ষ, সুষ্ঠ হয়েছে।

গুগল নিউজে ফলো করুন আরটিভি অনলাইন
বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সরকারি বাসভবন গণভবনে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, এবারের নির্বাচনে জনগণ তাদের ভোটের অধিকার যথাযথভাবে প্রয়োগ করতে পেরেছে। বিএনপি নানা অপকর্ম করে নির্বাচন ঠেকাতে চেয়েছিল। কিন্তু জনগণ তা করতে দেয়নি। তবে সরকারের নতুন যাত্রাপথ সহজ হবে না। নানা বাধা-বিপত্তি আসবে। সেসব বাধা-বিপত্তি মোকাবিলা করেই এগিয়ে যেতে হবে।

গোপালগঞ্জ জেলার আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা বলেন, আজ রাজনৈতিক কোনো কারণে ডাকিনি। ভোট দিয়ে কোথায় পাঠালেন সেটা দেখার জন্য দাওয়াত দিয়েছি। কোটালিপাড়া, টুঙ্গিপাড়ার মানুষ এসেছে গণভবন ধন্য হয়েছে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, টুঙ্গিপাড়ার মানুষ ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করায় প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশসেবা করার সুযোগ পাচ্ছি। গত নির্বাচন নিয়ে নানা রকম ষড়যন্ত্র ও বাধা-বিপত্তি ছিল। বিরোধিতা সত্ত্বেও ৭৫ পরবর্তীকালে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সবচেয়ে অবাধ ও নিরপেক্ষ হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আজ বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করা এটাই আমার সৌভাগ্য। ওইটুকু সুযোগ পেয়েছি। অন্তত যখন এই দেশের মানুষের কল্যাণ করতে পারি মানুষের মুখে যখন হাসি ফোটে শুধু আমার এটাই মনে হয়, আমার বাবাও হয়ত তিনি বেহেশত থেকে দেখছেন। অন্তত তিনি জানবেন তার মানুষগুলি আর কষ্টে নেই।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে দেশের অর্থনৈতিক নানা সংকট তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে মানুষের মধ্যে অসন্তোষ রয়েছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকার কাজ করছে। কিন্তু সবাই যদি অনাবাদি জমি চাষ করি তবে খাদ্যের অভাব থাকবে না। বরং উদ্বৃত্ত মানুষকে দিতেও পারব।