,



পেশাদারিত্বের অভাব ছিল পুলিশের

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক ও সরকারদলীয় সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদ বলেছেন, টেকনাফে সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় পুলিশের পেশাদারিত্বের অভাব ছিল। অ্যাটাক না হলে গুলি করাটা ঠিক হয়নি।

সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় গ্রেফতার টেকনাফ থানার পরিদর্শক (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ এবং পুলিশের আরও ৯ সদস্যের আদালতে আত্মসমর্পণ করার ঘটনাকে কীভাবে দেখছেন জানতে চাইলে পুলিশের সাবেক এই মহাপরিদর্শক উপরোক্ত কথা বলেন। নূর মোহাম্মদ বলেন, পুলিশের কাজটা কী? তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য যথাযথভাবে পালন করা। এককথায় বললে, পুলিশের কাজ হচ্ছে অপরাধ দমন, নিয়ন্ত্রণ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা। পুলিশের যদি কাউকে সন্দেহ হয়, তাহলে তারা সেই অপরাধীকে চ্যালেঞ্জ করবে। যাচাইবাছাই করবে। সন্দেহজনক ব্যক্তি যদি পুলিশের ওপর চড়াও হয় কিংবা গুলি করতে উদ্যত হয় তখন পুলিশের দিক থেকে গুলির ব্যাপার আসে। তিনি বলেন, সে ক্ষেত্রে একজন মানুষকে পুলিশ গুলি করবে ততটুকু, যতটুকু প্রয়োজন। পুলিশের এই সাবেক মহাপরিদর্শক বলেন, টেকনাফের ঘটনাটা আমি পুরোপুরি জানি না। তবে পত্র-পত্রিকায় দেখে যতটুকু জানতে পেরেছি তাতে আমার মনে হয় পাল্টা আক্রমণ আসেনি। পুলিশের আরেকটু যাচাইবাছাই করার দরকার ছিল। তিনি বলেন, আমরা আরেকটা বিষয় দেখি অনেকে পুলিশ, আর্মি বা অন্য বাহিনীর ইউনিফর্ম পরে অপরাধ করে। পুলিশ যাচাইবাছাই করে। এখানে আরেকটু যাচাইবাছাই করা উচিত ছিল। তিনি বলেন, এ ঘটনায় সরকার উচ্চপর্যায়ের একটা তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। সেই কমিটি একটা রিপোর্ট দেবে। সেখানে সুপারিশ থাকবে। তদন্ত দল যদি তাদের তদন্তে মনে করে যে, পুলিশ বাড়াবাড়ি করেছে তাহলে সংশ্লিষ্ট পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হবে। শাস্তি হবে। আবার যে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে সেটারও তদন্ত হবে। সেই তদন্ত প্রতিবেদনের ওপর নির্ভর করবে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের ভাগ্যে কী ঘটছে। আরেক প্রশ্নের জবাবে সাবেক আইজিপি বলেন, আর্মি এবং পুলিশের মধ্যে একটা সুসম্পর্ক রয়েছে। দৃঢ় সম্পর্ক রয়েছে। ওই ঘটনা-পরবর্তী পরিস্থিতিতে সেনা ও পুলিশপ্রধানের যৌথ সংবাদ সম্মেলন সময়োপযোগী বলে আমি মনে করি। নূর মোহাম্মদ বলেন, এই ঘটনার পর অনেকেই অনেকভাবে এটিকে হয়তো ব্যবহার করতে চেয়েছিল বা চাইত। এই সংবাদ সম্মেলনের পর সবার কাছে একটা বার্তা পৌঁছে গেছে। সেনাপ্রধানের বক্তব্যে সেনাবাহিনীর মধ্যে একটা বার্তা গেছে। একইভাবে পুলিশপ্রধানের বক্তব্যেও পুলিশের কাছে একটা বার্তা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর