ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উন্নয়ন কাজে সকলের সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রপতি

উন্নয়নমূলক কাজে দলমত নির্বিশেষে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বৃহস্পতিবার কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে বেশকিছু উন্নয়ন কাজের ভিত্তিফলক উদ্বোধন শেষে মিঠামইন ডাকবাংলো মাঠে জনসভায় রাষ্ট্রপতি একথা বলেন।

জনসভায় আবদুল হামিদ বলেন, ‘এক সময় মিঠামইন সদর উপজেলার অনেক গ্রাম বন্যায় বিলীন হয়ে গেছে। কিন্তু এখন যেন আর ভাঙনের কারণে বিলীন না হয় সেজন্য কাজ করে যাচ্ছি। এলাকার চলমান উন্নয়ন কাজগুলো বাস্তবায়িত হলে ভবিষ্যত প্রজন্ম উন্নতি ও প্রগতির দিকে এগিয়ে যাবে।’

কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, পরিকল্পনামন্ত্রী আহম মোস্তফা কামাল, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক চুন্নু, কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক ও মিঠামইন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস শাহিদ ভুঁইয়া প্রমুখ।

এর আগে সকাল ১১টা ১৫ মিনিটে হেলিকপ্টারে মিঠামইনে অবতরণ করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

দুপুর ১১টা ৪০ মিনিটে ডাক বাংলো মাঠে হাওরাঞ্চলের ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম উপজেলার ২৯ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ অলওয়েদার মহাসড়ক নির্মাণ কাজের ফলক উন্মোচন করেন তিনি। এ প্রকল্পে ৬শ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শেষ হবে ২০১৮ সালের জুন মাসে। এরপর উপজেলার কাঁঠাখাল এলাকায় একটি সেতুর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

Bangal Kantha

উন্নয়ন কাজে সকলের সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রপতি

আপডেট টাইম : ০৬:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৬

উন্নয়নমূলক কাজে দলমত নির্বিশেষে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বৃহস্পতিবার কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে বেশকিছু উন্নয়ন কাজের ভিত্তিফলক উদ্বোধন শেষে মিঠামইন ডাকবাংলো মাঠে জনসভায় রাষ্ট্রপতি একথা বলেন।

জনসভায় আবদুল হামিদ বলেন, ‘এক সময় মিঠামইন সদর উপজেলার অনেক গ্রাম বন্যায় বিলীন হয়ে গেছে। কিন্তু এখন যেন আর ভাঙনের কারণে বিলীন না হয় সেজন্য কাজ করে যাচ্ছি। এলাকার চলমান উন্নয়ন কাজগুলো বাস্তবায়িত হলে ভবিষ্যত প্রজন্ম উন্নতি ও প্রগতির দিকে এগিয়ে যাবে।’

কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, পরিকল্পনামন্ত্রী আহম মোস্তফা কামাল, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক চুন্নু, কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক ও মিঠামইন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস শাহিদ ভুঁইয়া প্রমুখ।

এর আগে সকাল ১১টা ১৫ মিনিটে হেলিকপ্টারে মিঠামইনে অবতরণ করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

দুপুর ১১টা ৪০ মিনিটে ডাক বাংলো মাঠে হাওরাঞ্চলের ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম উপজেলার ২৯ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ অলওয়েদার মহাসড়ক নির্মাণ কাজের ফলক উন্মোচন করেন তিনি। এ প্রকল্পে ৬শ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শেষ হবে ২০১৮ সালের জুন মাসে। এরপর উপজেলার কাঁঠাখাল এলাকায় একটি সেতুর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি।