আজ প্রেমিকার রাগ ভাঙাতে টেডি বিয়ার উপহার দিন

ভালোবাসার সপ্তাহের আজ চতুর্থ দিন। তবে আজকের দিনটা বাকি দিনগুলোর থেকে একটু অন্যরকম। এদিনটা আরেকটু বেশি মিষ্টি । কেননা আজ টেডি ডে। প্রেমিকার রাগ ভাঙাতে দিতে হয় এই উপহার। টেডি বিয়ার ভালোবাসায় উষ্ণতা আনে। নরম তুলতুলে টেডি বিয়ার প্রেমিকার মন থেকে রাগ মুছে দিতে পারে।

এই দিনটিতে সারা পৃথিবীতে অসংখ্য মানুষ নিজের সঙ্গীর জন্য টেডি বিয়ার কিনে আনেন । এখন আমাদের দেশেও-বিশেষ করে শহুরে সংস্কৃতিতে এ দিনটিতে টেডি দেওয়ার চল বেড়েছে ৷

টেডি বিয়ার হচ্ছে এক ধরনের নরম খেলনা। আর টেডি বিয়ার নামটা এসেছে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট থিওডোর রুজভেল্টের ডাকনাম টেডি থেকে ৷ বিশ শতকের প্রথম দশকে যুক্তরাষ্ট্রে মরিস মিচটম এবং জার্মানিতে রিচার্ড স্টিফ পৃথক পৃথকভাবে একই সময়ে এটি উদ্ভাবন করেন । মার্কিন প্রেসিডেন্ট থিওডোর ‘টেডি’ রুজভেল্টের নামানুসারে নাম-রাখা এই টেডি বিয়ার ক্রমেই শিশুদের খেলনার প্রতীক হয়ে ওঠে এবং ছোটদের গল্প, গান আর ছবিতেও ধীরে ধীরে স্থান করে নেয় ।

বাজারে বিভিন্ন রঙের টেডি বিয়ার পাওয়া যায়। পছন্দভেদে এগুলোর কদর করে মানুষ। বিশেষ করে প্রেমিকাকে দেওয়া হয় টেডি বিয়ার। টেডি দেওয়ার মাধ্যমে প্রিয় মানুষের কাছে নিজের বিশেষ অনুভূতি আদান প্রদান করা হয় । একে অপরের প্রতি ভালোবাসা জানানোর এক অনন্য অনুভূতি ৷

টেডি বিয়ার তুলতুলে নরম। দেখতেও সুন্দর আর আদুরে। এজন্য মেয়েরা টেডি বিয়ার অনেক পছন্দ করে। বেশিরভাগ মেয়ে নরম খেলনা পছন্দ করে । ছেলেরা তাদের প্রেমিকাদের টেডি বিয়ার দিয়ে মুগ্ধ করে ৷ তাই ১০ ফেব্রুয়ারি টেডি ডেকে ভ্যালেন্টাইনস সপ্তাহেও অন্তর্ভুক্ত করা হয় ।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর