রাজপথেই বিএনপিকে রুখে দেবে আওয়ামী লীগ’

আগামী নির্বাচনকে বানচাল করতে দেশের মধ্যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সুষ্টি করতে চায় বিএনপি। তাদের হাতে এদেশ কখনো নিরাপদ নয়। তারা সুযোগ পেলেই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও আগুন সন্ত্রাস করবে। তাই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথেই বিএনপিকে রুখে দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। তারা বলেছেন, বিএনপির সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মোকাবিলা করতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মাঠে আছে।

শুক্রবার বিকালে রাজধানীর মোহাম্মদপুর মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র, নৈরাজ্য ও অপপ্রচারের প্রতিবাদে শান্তি সমাবেশে এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এছাড়া সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ মহানগর নেতৃবৃন্দরাও বক্তব্য রাখেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক তার বক্তব্যে বলেন, নির্বাচনকে বানচাল করতে বিএনপি মাঠে নেমেছে। নির্বাচনে যাওয়া তাদের উদ্দেশ্যে নয়, তাদের উদ্দেশ্যে দেশের মধ্যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে নির্বাচনকে বানচাল করা। তবে জনগণ তা কখনো হতে দেবে না।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে দেশের মানুষ নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারও জলযুক্ত করবে। বিএনপিকে চিনে রাখতে হবে। তারা বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে ষড়যন্ত্র করছে। ঐক্যবদ্ধভাবে তাদেরকে রাজপথেই রুখে দিতে হবে। বিএনপির সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মোকাবিলা কররার জন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে হবে।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম বলেন, যখনই নির্বাচন আসে তখনই মিথ্যা অপপ্রচার নিয়ে সামনে আসে বিএনপি। বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। বিএনপির হাতে কখনো দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। সুযোগ পেলে তারা আবারও দেশের মধ্যে বিশূঙ্খলা করবে। জনগণের জানমাল রক্ষায় আওয়ামী লীগ রাজপথে আছে এবং থাকবে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিল্পব বড়ুয়া বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা যেকোনো পরিরিস্থতি মোকাবিলা মাঠে আছে। এখন থেকে আগামী নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকব। মানুষের ভোটাধিকার ও গণতন্ত্রকে পাহারা দিতে হবে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর