,



জাপান ক্লাবে জাপানি নেই তবে

বাঙালী কণ্ঠ নিউজঃ  রাজধানীর উত্তরায় অবস্থিত ‘জাপান ক্লাবে’ কেবল জাপানি পাসপোর্টধারীরাই প্রবেশ করে মদ-বিয়ার পান করতে পারবে। কিন্তু জাপানিরা সেখানে না গেলেও বাংলাদেশি ছেলে-মেয়েরা ঠিকই ওই ক্লাবে গিয়ে আনন্দ-ফূর্তিতে মেতে থাকে। অনেক সময় এসব ছেলে-মেয়েকে অশ্লীল ও আপত্তিকর অবস্থাতেও পাওয়া যায়।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের ঢাকা মেট্টো অঞ্চলের উপ-পরিচালক মুকুল জ্যোতি চাকমা যমুনা নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘কিছু বিদেশি ক্লাব রয়েছে, যেগুলোতে বিদেশি পাসপোর্টধারীরা বিয়ার পান করতে পারবে। বাংলাদেশি কেউ সেখানে গিয়ে মদ-বিয়ার পান করতে পারবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এরপরেও যদি কেউ যায়, তবে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হয়ে থাকে। আর ক্লাব কর্তৃপক্ষের উচিত পাসপোর্ট ছাড়া কাউকে ঢুকতে না দেওয়া।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ৬ মার্চ উত্তরার জাপান ক্লাবটিতে অভিযান চালায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের একটি দল। অভিযানে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ-বিয়ার জব্দ করা হয়। সেই সঙ্গে বাংলাদেশি ৮জন নারীকে আটক করা হয়। এরপর ২ দিন পার না হতেই ক্লাবটি পুণরায় চালু করে কর্তৃপক্ষ।

এরপর গত ১৩ জুলাই রাতে আবারও ক্লাবটিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের একটি দল অভিযান চালায়। এসময় ক্লাবটি থেকে মদ-বিয়ারসহ দুইজনকে আটক করে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জাপান ক্লাবের ম্যানেজার নাজমুল হক বলেন, ক্লাবের বৈধ কাগজ পত্র আছে।

তবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উত্তরা জোনের পরিদর্শক মাসুদুর রহমান বলেন, পাবলিকের কাছে মদ-বিয়ার বিক্রি করার মতো কোনো বৈধ কাগজপত্র ক্লাবটির কর্তৃপক্ষের কাছে নেই। ক্লাবটি মূলত অবৈধভাবেই মদ-বিয়ার বিক্রি করতো। তাই সেখানে অভিযান চালিয়ে দু’জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর