বিদেশি অনেক রাষ্ট্রদূতের উসকানিতে বিএনপির জ্বালাও-পোড়াও

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, নির্বাচনের আগে বিদেশি অনেক রাষ্ট্রদূত বেশি কথা বলেন। আর তখনই বিএনপি-জামায়াতের জ্বালাও-পোড়াও শুরু হয়। তার মানে তারাই উসকানি দিচ্ছে।

শনিবার (১৮ নভেম্বর) সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে আয়োজিত ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড-২০২৩’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র দেড় মাস বাকি। নির্বাচন যেদিন শেষ হবে সেদিন তারাও (বিদেশি রাষ্ট্রদূত) চুপ হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, গত তিন নির্বাচন ধরেই বিএনপি-জামায়াত জ্বালাও-পোড়াও করছে। কিন্তু তাদের মোকাবিলা করা খুবই সহজ। যারা জ্বালাও-পোড়াও করছে তাদের বিরুদ্ধে ভোট দিতে হবে। যারা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে তাদের ভোট দেবেন, নৌকায় ভোট দেবেন।

প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা বলেন, বিএনপি-জামায়াত দেশের জন্য কিছুই করেনি। অথচ গত ১৫ বছরে সবাই দেখেছে আওয়ামী লীগ দেশের জন্য কি কি কাজ করেছে। দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে। বাংলাদেশের তরুণদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। দেশের দুর্নীতি আপনারাই সমাধান করতে পারেন।

জয় বলেন, আগামী ১০-১৫ বছরে বিএনপি-জামায়াত আর টিকে থাকবে না। জঙ্গিবাদী-মৌলবাদী শক্তির চিহ্ন বাংলাদেশ থেকে মুছে যাবে।

অনুষ্ঠানে মানবিক কাজের মাধ্যমে সমাজে অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে দেশসেরা ১২টি যুব সংগঠনকে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড-২০২৩’ দেওয়া হয়। দেশের ৭৫০টিরও বেশি সংগঠনের মধ্য থেকে দক্ষতা ও কর্মসংস্থান, শিল্প ও সংস্কৃতি, সম্প্রদায়ের সুস্থতা, সামাজিক অন্তর্ভুক্তি, জলবায়ু ও পরিবেশ উদ্ভাবন এবং যোগাযোগ- এই ছয় ক্যাটাগরিতে এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিআরআইয়ের ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিকী, জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম, সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক প্রমুখ।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর