ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগই সেরা

উয়েফা র‌্যাংকিংয়ে এক নম্বরে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। গত চার মৌসুম ধরেই শীর্ষে রয়েছে ইংলিশ লিগ। সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ ফুটবল লিগও সম্ভবত এটা। বিশ্বের সেরা ফুটবলাদের পাশাপাশি সেরা কোচদের সম্মিলন ঘটে এই লিগে।

প্রায় সমমানের বেশ কিছু ক্লাব থাকায় শিরোপা লড়াইটা সবসময়ই হয় রোমাঞ্চকর, তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ। ছোট ছোট দলগুলোও হরহামেশা দেখায় চমক। ২০১৬ সালেই যেমন বিস্ময় জাগানিয়া সাফল্যে শিরোপা জিতেছিল ক্লদিও রেনেরির লেস্টার। ছোট দলগুলোর প্রতিনিয়ত চমকে আরো আকর্ষণীয় রূপ নেয় ইংলিশ লিগ।
আরো রোমাঞ্চ ছড়ায়।
ইংলিশ লিগের কতোটা প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ রিয়াল মাদ্রিদ তারকা লুকা মডরিচের কথাতেই তা সুস্পষ্ট প্রতীয়মান হয়। একসময় ইংল্যান্ডের ক্লাব টটেনহামে খেলেছেন এই ক্রোয়াট প্লে-মেকার। সেই অভিজজ্ঞতা থেকে মডরিচ বলেন,‘প্রিমিয়ার লিগ বিশ্বের সেরা প্রতিযোগিতা।
ম্যানইউ, চেলসি, লিভারপুল, ম্যানসিটি এবং আর্সেনালের মতো দুর্দান্ত দলগুলোর প্রতিদ্বন্দ্বী হিাসাবে মোটেও সহজ নয়।’
মডরিচের এই কথাটা আক্ষরিক অর্থে কতোটা সত্য তা বিগত কয়েকটা মৌসুমের পয়েন্ট তালিকায় চোখ রাখলেই অকাট্য প্রমাণ মিলবে।
২০১৬ সালে বিস্ময়জাগানিয়া সাফল্যে লিস্টার সিটির ট্রফি উৎসবের পর ৯০ পয়েন্টের নীচে প্রিমিয়ার লিগ জয়ের ঘটনা মাত্র একটি। গত মৌসুমে ২৪৮ দিন শীর্ষে থাকার পরও কিন্তু ইংলিশ প্রিমিয়ারের শিরোপা জিততে পারেনি আর্সেনাল। এতদিন এক নম্বরে থেকেও ট্রফি জিততে না পারার অমন নজির প্রিমিয়ার লিগে নেই আর একটিও! ২০১৭-১৮ মৌসুমে পয়েন্টের সেঞ্চুরি করে শিরোপা জিতেছিল ম্যানচেস্টার সিটি।
২০১৯-২০ মৌসুমে লিভারপুল লিগ জেতে ৯৯ পয়েন্ট স্কোর গড়ে। এই লিভারপুলই ২০১৮-১৯ মৌসুমে ৯৭ পয়েন্ট স্কোর গড়েও জিততে পারেনি শিরোপা। এ তথ্যই প্রমাণ করে কতোটা তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বীতা হয় প্রিমিয়ার লিগে।
চলতি মৌসুমেও লড়াই হচ্ছে বহুমুখী। আপাতত ১৬ রাউন্ড শেষে শিরোপা লড়াইয়ে অন্য ফেভারিটদের সঙ্গে আছে অ্যাস্টন ভিলার নামও। উনাই এমেরির ছোঁয়া খোল নলচে আমুল বদলে গেছে বার্মিংহামের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। ভিলা পার্ক এখন যে কোনো প্রতিপক্ষের জন্য দুর্ভেদ্য এক দুর্গ। নিজ মাঠে লিগের সবশেষ খেলা পনের ম্যাচেই জয়োৎসব করেছে এমেরির শিষ্যরা। বর্নীল এই পথচলায় তারা সবশেষ দুই ম্যাচে হারিয়েছে দুই পরাশক্তি ম্যানচেস্টার সিটি এবং আর্সেনালকে।  অমন বিস্ময় জাগানিয়া সাফল্যেই এখন শিরোপার টক্কর দিচ্ছে অ্যাস্টন ভিলা। চার দশক পর আবার লিগ জয়ের স্বপ্ন দেখছে ভিলার সমর্থকরা!
অ্যাস্টন ভিলার এ স্বপ্ন পূরণ হবে কি না উত্তর দেবে সময় তবে এই মুহুর্তে তাদের অবস্থান তিন নম্বরে। তাদের চেয়ে মাত্র  দুই পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শীর্ষে অবস্থান লিভারপুলের। চলতি মৌসুমে মোটে একটি ম্যাচ হেরেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। অলরেডদের চেয়ে এক পয়েন্ট মাত্র পেছনে উনাই এমেরির সাবেক ক্লাব আর্সেনাল । ভিলার শিকার না হলে পয়েন্ট তালিকায় এক নম্বরে থাকতে পারতো গানাররাও।
অ্যাস্টন ভিলার কাছে হেরে শিরোপা লড়াইয়ে কিছুটা পেছনে পড়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। সেই সিটিজেনরাও শীর্ষে থাকা লিভারপুলের চেয়ে চার পয়েন্ট পেছনে। এই চার পয়েন্টই পৃথক করে রেখেছে প্রথম চারটি দলকে। সিটির ঘাড়ের উপর নি:শ্বাস ফেলছে কিন্তু টটেনহামও। অলরেডেদের সঙ্গে তাদের ব্যবচ্ছেদ সাত পয়েন্টের। আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড পিছিয়ে ১০ পয়েন্ট। আগের ব্যর্থতা পেছনে ফেলে ব্যবধান কমিয়ে আনার সুযোগ আছে রেড ডেভিলদেরও। গত মৌসুমেই তো এর চেয়ে বেশি পেছনে থেকে এগিয়ে এসে শিরোপা উৎসব করেছিল পেপ গার্দিওলার ম্যানসিটি।
মৌসুমের বাকী পথচলার বাঁকে বাঁকে নানা চড়াই উৎরায়ে হয়তো আরো রং বদলাবে প্রিমিয়ার লিগ। সেই রং বদলের খেলায় শেষ পর্যন্ত কার ঘরে শিরোপা উঠতে তা নিয়ে আগাম ভবিষ্যদ্বানী করা তাই বেশ মুশকিল। আর এ জন্যই তো বিশ্বব্যাপী এতটা আকর্ষণীয় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। বার্সেলোনা কিংবদন্তি জাভি এর্নান্দেজও এক সময় বলেছিলেন,‘ আমি আসলে খুব বেশি অনুষ্ঠান দেখিনা। আমি হয় সিনেমা দেখব নয়তো ফুটবল। আমি প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ দেখাটা উপভোগ করি। পাশাপাশি অনেক সিনেমাও দেখি। এভাবেই আমি আমার অবসর সময় কাটাই।’
ফুটবল ভালোবাসলে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বীর বাঁকে বাঁকে ভরপুর রোমাঞ্চ উপহার দেওয়া ইংলিশ লিগের প্রেমে পড়বেন সব্বাই। ইএসপিএন 
Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর