বক্তৃতার দরকার নেই, শুধু ইলেকশনে ছক্কা মেরে দিও, সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের একটা রত্ন আছে। এই রত্নটা ক্রিকেট রত্ন। মাগুরা-১ আসনে আমরা এবার নমিনেশন দিয়েছি রত্ন সাকিব আল হাসানকে। সে বলেছে বক্তৃতা দিতে পারে না।

আমি বলেছি বক্তৃতা দেওয়ার দরকার নাই। তুমি শুধু বলবা তুমি ছক্কা মারতে পারো, আর বল করে উইকেট ফেলে দিতে পারো, তাহলেই হবে। এইবার ইলেকশনেও ছক্কা মেরে দিও।

মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) বিকেলে ফরিদপুরের সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী জনসভায় প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার সময় এ কথা বলেন শেখ হাসিনা। এ সময় মাগুরা, ফরিদপুর ও রাজবাড়ী জেলার সব আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া মেট্রিক পরীক্ষায় শুধু অঙ্ক আর উর্দুতে পাস করেছেন, তাই পেয়ারে পাকিস্তান বলেন।

তিনি বলেন, নৌকা মার্কা ভোট পেলে আমি ক্ষমতায় আসতে পারবো। দেশে-বিদেশে অনেক চক্রান্ত আছে। সব মোকাবিলা করতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, একটু জমিও যাতে অনাবধি না থাকে। শাক-সবজি মাছ মাংশ উৎপাদন করতে হবে। আমার গণভবন ছোট-খাটো খামার বাড়ি। ২০০১ সালে বিএনপি জামায়াত ক্ষমতায় এসে দেশকে জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। আর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়। ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে দেশ গড়তে নামি আমি।

তিনি বলেন, আমি জাতির পিতার কন্যা। কারও কাছে মাথা নত করি না, মাথা নত করব না। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় এসেছিল গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে। আমি গ্যাস বিক্রি করতে চাইনি বলে ষড়যন্ত্র করে আমাকে আসতে দেয়নি।

অনেককে ব্যবসা-বাণিজ্যের সুযোগ দেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, মিডিয়া চালানোর সুযোগ দিয়েছি। নিচ থেকে টেনে তুলেছি। তারা এখন অনেক টাকার মালিকা হয়েছে। নির্বাচনে টাকা ছড়াচ্ছে। টাকা দিয়ে মানুষ কেনা যায় না। শামীম হক নৌকার মাঝি। ফরিদপুর বাসীর কাছে তাকে তুলে দিয়ে গেলাম।

আওয়ামী লীগ সরকার অসহায় বৃদ্ধের জন্য বয়স্ক ভাতা চালু করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২৯ লাখ ১০ হাজার প্রতিবন্ধিকে ভাতা দেওয়া হয়। সারাদেশে বিনামূল্যে বই দেওয়ার ব্যবস্থা করছে সরকার। মায়েদের মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান করি আমরা। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে চাই। গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি করেছি। ২০২৩ সালে সাড়ে ১২ হাজার টাকায় উন্নীত করেছি।

এর আগে দুপুর ১টা ৫৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী ফরিদপুর পৌঁছে সার্কিট হাউসে আসেন। সেখানে মধ্যাহ্নভোজ ও বিশ্রাম শেষে বিকেল ৩টা ১৩ মিনিটে সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের জনসভায় যোগ দেন। জনসভা মঞ্চে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে নেতাকর্মীরা তাকে স্লোগান ও অভিবাদন দিয়ে বরণ করে নেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর