এসপি বাবুল আক্তারের বিষয়ে যা বললেন আইজিপি

মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, যেকোনো গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা বা মামলার বাদীকে তদন্তকারী কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদ করে থাকেন।  এ কারণেই মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার স্বামী পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে এক প্রশ্নের জবাবে গণমাধ্যমকে তিনি এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, মিতু হত্যাকাণ্ডের পর বাবুল আক্তার মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন।  এ কারণে কয়েকদিন পর চট্টগ্রাম থেকে আসা তদন্তকারী কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।  এটি একটি স্বাভাবিক


প্রক্রিয়া।

বাবুল আক্তারকে আটক কিংবা গ্রেফতারের প্রশ্নই আসে না বলেও জানান আইজিপি।

এর আগে শুক্রবার রাতে রাজধানীর খিলগাঁওয়ে তার শ্বশুরের বাসা থেকে বাবুল আক্তারকে নিয়ে যায় পুলিশ।

এর আগে আজ দুপুরে রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে সাংবাদিকদের প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছিলেন, পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে তার স্ত্রী হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে জানার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মিতু হত্যার ঘটনায় এরই মধ্যে যাদের আটক করা হয়েছে, তাদের ব্যাপারে তারা এখন নিশ্চিত (কনফিডেন্ট)।  তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পরে শনিবার বিকেলে জিজ্ঞাসাবাদের পর বাসায় ফিরে যান বাবুল আক্তার।

এদিকে শনিবার সকালে বাবুল আক্তারের শ্বশুর মোশাররফ হোসেন জানান, আইজিপি স্যার ডেকেছেন বলে শুক্রবার রাতে বাসা থেকে বাবুল আক্তারকে নিয়ে যায় পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ থানার জিইসির মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে গিয়ে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাত ও গুলিতে নিহত হন বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর