ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টানা চতুর্থবার স্পিকার হলেন শিরীন শারমিন চৌধুরী

টানা চতুর্থবারের মতো জাতীয় সংসদের স্পিকার হলেন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। আজ মঙ্গলবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে তাকে স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত করা হয়।

আজ বিকেল ৩টায় একাদশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়। শপথের পর অধিবেশনের বাকি অংশে সভাপতিত্ব করছেন শিরীন শারমিন চৌধুরী।

অধিবেশনের শুরুতে ডেপুটি স্পিকার সবাইকে স্বাগত জানান। সংসদে সড়ক পরিবহন ও সেতুমমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্পিকার হিসেবে শিরিন শারমিন চৌধুরীর নাম প্রস্তাব করেন। আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সম্পাদক চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী লিটন ওই প্রস্তাবকে সমর্থন করেন। পরে কণ্ঠ ভোটে তা পাস হয়। স্পিকার হিসেবে অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শিরীন শারমিন চৌধুরী স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন বলে ঘোষণা করেন ডেপুটি স্পিকার।

এরপর ২০ মিনিটের জন্য সংসদ মুলতবি ঘোষণা করা হয়। এ সময় সংসদ ভবনের রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন স্পিকার হিসেবে শিরীন শারমিন চৌধুরীকে শপথ পড়ান। স্পিকার নির্বাচনের সময় সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদেরসহ সরকারি ও বিরোধী দলের প্রায় সব সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৬ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন শিরীন শারমিন চৌধুরী। তার জন্ম ১৯৬৬ সালে ৬ অক্টোবর ঢাকায়। তার বাবা সাবেক সচিব রফিকউল্লাহ চৌধুরী ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একান্ত সচিব; মা অধ্যাপক নাইয়ার সুলতানা সরকারি বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সদস্য ছিলেন। শিরীন শারমিন চৌধুরী পেশায় আইনজীবী।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

Bangal Kantha

টানা চতুর্থবার স্পিকার হলেন শিরীন শারমিন চৌধুরী

আপডেট টাইম : ০৫:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৪

টানা চতুর্থবারের মতো জাতীয় সংসদের স্পিকার হলেন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। আজ মঙ্গলবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে তাকে স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত করা হয়।

আজ বিকেল ৩টায় একাদশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়। শপথের পর অধিবেশনের বাকি অংশে সভাপতিত্ব করছেন শিরীন শারমিন চৌধুরী।

অধিবেশনের শুরুতে ডেপুটি স্পিকার সবাইকে স্বাগত জানান। সংসদে সড়ক পরিবহন ও সেতুমমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্পিকার হিসেবে শিরিন শারমিন চৌধুরীর নাম প্রস্তাব করেন। আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সম্পাদক চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী লিটন ওই প্রস্তাবকে সমর্থন করেন। পরে কণ্ঠ ভোটে তা পাস হয়। স্পিকার হিসেবে অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শিরীন শারমিন চৌধুরী স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন বলে ঘোষণা করেন ডেপুটি স্পিকার।

এরপর ২০ মিনিটের জন্য সংসদ মুলতবি ঘোষণা করা হয়। এ সময় সংসদ ভবনের রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন স্পিকার হিসেবে শিরীন শারমিন চৌধুরীকে শপথ পড়ান। স্পিকার নির্বাচনের সময় সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদেরসহ সরকারি ও বিরোধী দলের প্রায় সব সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৬ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন শিরীন শারমিন চৌধুরী। তার জন্ম ১৯৬৬ সালে ৬ অক্টোবর ঢাকায়। তার বাবা সাবেক সচিব রফিকউল্লাহ চৌধুরী ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একান্ত সচিব; মা অধ্যাপক নাইয়ার সুলতানা সরকারি বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সদস্য ছিলেন। শিরীন শারমিন চৌধুরী পেশায় আইনজীবী।