ক্ষমা চাইলেন ট্রুডো

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে লড়া ইউক্রেনের একজন সেনার প্রশংসা করেছিলেন হাউস অব কমন্সের স্পিকার। তিনি লড়েছিলেন নাৎসিদের হয়ে।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) তাই প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো। তিনি বলেন, তার ভুল হয়ে গেছে, এই ঘটনার জন্য তিনি খুবই বিব্রত বোধ করছেন।

হাউস অব কমন্সে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সামনেই স্পিকার এই প্রশংসা করেন। ট্রুডো জানিয়েছেন, তিনি কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে কিয়েভ ও জেনেলস্কির সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন ও ক্ষমা চেয়েছেন।

হাউস অব কমন্সের স্পিকার সাবেক নাৎসি সেনাকে ‘হিরো’ বলে সম্বোধন করেছিলেন। গত মঙ্গলবার স্পিকার অ্যান্থনি রোটা পদত্যাগ করেছেন। তিনি বলেছেন, যা হয়েছে, তার জন্য তিনি একাই দায়ী।

রোটা যার প্রশংসা করেছিলেন, তার নাম ইয়োস্লাভ হুনকা। তার বয়স ৯৮ বছর। তিনি পোল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করা ইউক্রেনের মানুষ। হিটলারের এসএস বাহিনীতে তিনি ছিলেন। পরে তিনি কানাডায় চলে আসেন।

এই ঘটনার পর রাশিয়া আবার জানিয়েছে, ইউক্রেন যুদ্ধের অন্যতম কারণ হলো, সেই দেশকে নাৎসিদের কবল থেকে মুক্ত করা। কিন্তু ইউক্রেন ও পশ্চিমা দেশগুলি তা মানতে চায় না। ট্রুডো বলেছেন, এই সব কথা বলে রশিয়া কখনই তাদের এই আগ্রাসনকে ঠিক বলে প্রমাণ করতে পারবে না।

ট্রুডো হাউসে বলেন, পার্লামেন্টে সকলের পক্ষ থেকে আমি ক্ষমা চাইছি। গত শুক্রবার প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি ও ইউক্রেনের প্রতিনিধিদলের সামনে যা হয়েছে, তার জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর