তুরাগতীরে লাখো মুসল্লির জুমার নামাজ আদায়

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের প্রথম দিনে তুরাগ নদের তীরে লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে জুমার নামাজ আদায় হয়েছে। এটি ছিল  ৫৭তম বিশ্ব ইজতেমার শেষ জুমা। জুমার নামাজ পড়ান মাওলানা সাদের বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ।

ইজতেমা ময়দানে জুমার নামাজে খুতবা পাঠ শুরু হয় দুপুর ১টা ৩১ মিনিটে, শেষ হয় ১টা ৪৬ মিনিটে।

দুপুর ১টা ৪৭ মিনিটে জুমার জামাত শুরু হয়ে শেষ হয় ১টা ৫৭ মিনিটে। জুমার নামাজে লাখ লাখ মুসল্লি অংশ নেন। ইজতেমার মূল প্যান্ডেল ছাপিয়ে ময়দানের চারদিকে রাস্তাঘাটেও ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা জুমার নামাজে শরিক হন।শুক্রবার  বাদ ফজর মাওলানা সাদের ছোট ছেলে মাওলানা ইলিয়াস বিন সাদের আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর দ্বিতীয় বৃহত্তম তাবলিগ জামাতের ৫৭তম ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব।

যদিও বৃহস্পতিবার বাদ জোহর পাকিস্তানের মাওলানা হারুন কোরায়েশির বয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমা শুরু হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।ইজতেমার মিডিয়া সমন্বয়কারী মোহাম্মদ সায়েম ইজতেমা ময়দানে ছয় মুসল্লির মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আর ইজতেমায় আসার পথে আব্দুল্লাহপুরে বাসের ধাক্কায় এক মুসল্লি মারা গেছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো তিন মুসল্লি।

এই নিয়ে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের শুরুতেই মারা গেলেন সাত মুসল্লি।আজ জুমার আগে বয়ান করেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ। বাদ জুমা বয়ান করেন আরবের মাওলানা শেখ মোফলে। বাদ আসর মাওলানা মোশারফ, বাদ মাগরিব মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ বয়ান করবেন।

জুমার আগ পর্যন্ত ৫৪টি দেশের ছয় হাজার ৩৬ জন মুসল্লি বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে ময়দানে পৌঁছেছেন বলে জানিয়েছেন ইজতেমার মিডিয়া সমন্বয়কারী মোহাম্মদ সায়েম।

এর মধ্যে আরবীয় নাগরিক ৪১১, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দুই হাজার ৬০, উর্দু এক হাজার ৫৫০, ইংলিশ দুই হাজার ১৫ জন।জুমার নামাজে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি, স্থানীয় এমপি জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহবুব আলম, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি দপ্তর ও সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রাজধানীসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার হাজার হাজার মানুষ রেলপথ, সড়কপথ, নৌপথসহ বিভিন্ন যানবাহন এবং অনেকে পায়ে হেঁটে ইজতেমার জুমার নামাজে অংশ নেন। আগামী রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এ ধর্মীয় সমাবেশের আসর শেষ হবে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর