কথা রাখলেন না বাপ্পি

ঘনিয়ে আসছে আসন্ন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। প্রার্থীদের ব্যস্ততা বেড়েছে। সরগরম হয়ে উঠেছে এফডিসিপাড়া। এরই মধ্যে নেট দুনিয়ায় চলছে নানা বিষয় নিয়ে চর্চা। এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন নায়ক বাপ্পি সাহা।

কলি-নিপুণ প্যানেল থেকে সহ সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন করবেন তিনি। তবে বাপ্পির নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে বেশ চর্চা হচ্ছে সিনেপাড়ায়।

অনেকেই বলছেন, এ নায়কের জবান ঠিক নেই। এক মুখে দুই কথা বলে। কেন এই অভিযোগ তার বিরুদ্ধে?

জানা যায়, ২০২২ সালে নির্বাচনের সময় বাপ্পি গণমাধ্যমে মন্তব্য করেছিলেন, তিনি পলিটিক্স বোঝেন না। তাই নির্বাচনের ঝুট ঝামেলায় নিজেকে জড়াতে চান না। তিনি তখন আরও বলেছিলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় শিল্পী সমিতির নির্বাচন হওয়ার দরকার নেই। কারণ নির্বাচন নিয়ে শিল্পীদের মধ্যে ক্ল্যাশ তৈরি হয়। অমুক ভালো না, তমুক ভালো না। এগুলো নিয়েই আমাদের দুটি বছর চলে যায়। আমি এতো বছর ধরে ফিল্মে আছি, কখনো সমিতির নির্বাচন করিনি। আমার ইচ্ছেও নেই নির্বাচন করার।’

তবে আগের অবস্থান থেকে সরে এসে নতুনভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে আসন্ন নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে সম্প্রতি এ অভিনেতা বলেন, ‘দূর থেকে অনেক কিছুই করা যায় না। কিন্তু নির্বাচনের মাধ্যমে সাধারণ শিল্পীদের কাছাকাছি আসা যায়।’

বোল পাল্টেছেন বাপ্পি, এমনটাই দাবি করে অনেকেই বলছেন, দীর্ঘদিন নতুন সিনেমার খবরে নেই এ নায়ক। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাগুলোও মুখ থুবড়ে পড়ে। যার কারণে প্রযোজক-পরিচালকরা তাকে নিয়ে কাজ করতে অনাগ্রহী। কর্মহীন হয়ে নিজেকে আলোচনায় রাখার জন্য তিনি বেছে নিয়েছেন শিল্পী সমিতির নির্বাচন।

 

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর