,



নিশা দেশাইয়ের সফরে যেসব বিষয় প্রাধান্য পেতে পারে

চতুর্থবারের মতো বুধবার ঢাকা আসছেন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই।

বুধবার থেকে শুরু হতে যাওয়া তিনদিনের সফরে তিনি নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণসহ সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রপন্থি দমনে ঢাকা-ওয়াশিংটনের সহযোগিতা বিষয়ক আলোচনা গুরুত্ব দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

কূটনীতি বিশ্লেষকদের ধারণা, সমসাময়িক ইস্যু হিসেবে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, মুক্তমতের চর্চায় বাধা, মার্কিন দূতাবাস কর্মকর্তা, শিক্ষক ও ব্লগার খুনসহ সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে।

এর আগে দশম জাতীয় সংসদ


নির্বাচনের আগে বাংলাদেশে আসেন নিশা দেশাই।  সে সময় বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী খালেদা জিয়াসহ বিভিন্ন পেশার  প্রতিনিধিদের সঙ্গে।

এরপর ২০১৪ ও ২০১৫ সালে আরো দু’দফা ঢাকায় আসেন নিশা দেশাই।  এবারের সফর একেবারেই ভিন্ন বলে বিশ্লেষকদের ধারণা।

এবারো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার সাক্ষাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে তার বৈঠক যে হবে তা একপ্রকার নিশ্চিত।

সমসাময়িক ইস্যুতে সুশীল সমাজের সঙ্গেও বসতে পারেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, যুক্তরাষ্ট্র সরকার এরই মধ্যে জুলহাজ মান্নান হত্যাকাণ্ডসহ সাম্প্রতিক গুপ্তহত্যার ঘটনা তদন্তে বাংলাদেশকে সহযোগিতার আগ্রহ ব্যক্ত করেছে, নিশা দেশাইয়ের সফরে সমসাময়িক রাজনৈতিক ইস্যু ও নিরাপত্তা বিষয়ক আলোচনা থাকবে।

একইসঙ্গে সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলোর উদাহরণ টেনে সরকারি দলসহ দেশের সব রাজনৈতিক দলকে স্থিতিশীলতা বজায় রাখার আহবান জানাতে পারেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর