সাকিব-তাহিরের নৈপুণ্যে রংপুরের টানা ষষ্ঠ জয়

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম দিনের দুই ম্যাচেই আগে ব্যাট করা দল করল ২০০ রানের বেশি। পরে ব্যাট করা দল সেই রান তাড়া করতে গিয়ে হারল বড় ব্যবধানে। প্রথম ম্যাচে কুমিল্লার সহজ জয়ের পর দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনাকে টানা চতুর্থ হারের স্বাদ দিল রংপুর।

ব্যাটিংয়ে সাকিব আল হাসান আর বোলিংয়ে ইমরান তাহির, এই দুজনের সঙ্গেই পারল না খুলনা টাইগার্স। সাকিব আর তাহিরের নৈপুণ্যে খুলনাকে ৭৮ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে বিপিএলে টানা ষষ্ঠ জয় পেয়েছে রংপুর রাইডার্স, সেইসঙ্গে নক-আউট পর্বে যাওয়ার রাস্তা আরও সুগম হয়েছে দলটির।

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম দিনের দুই ম্যাচেই আগে ব্যাট করা দল করল ২০০ রানের বেশি। পরে ব্যাট করা দল সেই রান তাড়া করতে গিয়ে হারল বড় ব্যবধানে। প্রথম ম্যাচে কুমিল্লার সহজ জয়ের পর দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনাকে টানা চতুর্থ হারের স্বাদ দিল রংপুর।

আগে ব্যাট করে ২০ ওভার খেলে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ২১৯ রান সংগ্রহ করে রংপুর। জবাবে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান তুলতে পারে খুলনা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬০ রান করেছেন অ্যালেক্স হেলস, ৩৩ বলের ইনিংসে সাত চার ও তিন হাঁকিয়েছেন এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান।

হেলসকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি খুলনার আর কোনো ব্যাটসম্যান। ইমরান তাহিরের লেগ স্পিন ঘূর্ণিতে দিক হারিয়েছেন টাইগার্সের ব্যাটসম্যানরা। ৪৪ বছর বয়সী দক্ষিণ আফ্রিকান তাহির ২৬ রান দিয়ে নিয়েছেন পাঁচটি উইকেট।

এর আগে, টস জিতে ব্যাট করে সাকিব আল হাসান ও মেহেদি হাসান ঝড় তোলেন রংপুরের ইনিংসে। সাকিব ৩১ বলে ছয়টি করে চার ও ছয়ে করেছেন ৬৯ রান। এবারের বিপিএলে দ্রুততম হাফসেঞ্চুরিও তুলে নিয়েছেন বাঁহাতি ওই অলরাউন্ডার।

মেহেদির ব্যাট থেকে এসেছে ৩৬ বলে ছয় চার ও চার ছয়ে ৬০ রান। এছাড়া শেষদিকে নুরুল হাসান ১৩ বলে ৩২ রানের ক্যামিও খেলেছেন। বেধড়ক মার খাওয়ার দিনেও খুলনার হয়ে মাত্র ১৯ রান দিয়ে তিনটি উইকেট নিয়েছেন লুক উড।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর